উহুদের যুদ্ধ


যুদ্ধ ভয়ংকর আকার ধারণ করলো। আবু দুজানা রাদিয়াল্লাহু আনহু নিজের দেহকে ঢাল বানিয়ে রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে রক্ষা করতে লাগলেন। তাঁর পিঠে তীর বিদ্ধ হচ্ছিল আর তিনি রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে আড়াল করে তাঁর উপর ঝুঁকে দাঁড়িয়েছিলেন। এভাবে তাঁর গায়ে বিদ্ধ তীরের সংখ্যা দাঁড়ালো প্রচুর। আর সা’দ ইবনে আবি ওয়াক্কাস রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের প্রতিরক্ষার চেষ্টায় তীর নিক্ষেপ করতে লাগলেন। সা’দ বললেন, আবু দুজানাকে দেখলাম, আমাকে একটার পর একটা তীর দিয়েই চলছেন আর বলছেন,’তোমার জন্য আমার পিতামাতা কুরবান হোক। তুমি তীর নিক্ষেপ করতে থাক এমনকি এক সময় তিনি ফলকবিহীন তীরও দিচ্ছিলেন আর বলছিলেন, “নিক্ষেপ কর।”

পরাজয় ঘটার এবং রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের শাহাদাত লাভের গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়ার পর রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে দেখে সর্বপ্রথম চিনতে পারেন কা’ব ইবনে মালিক। কা’ব বলেন, শিরস্ত্রাণের ভেতর থেকে রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের চোখ দুটি জ্বলজ্বল করছিলো আর তা দেখেই আমি চিনতে পারলাম এবং সঙ্গে সঙ্গে চিৎকার করে বললাম, “হে মুসলমানগণ, সুসংবাদ ! রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বেঁচে আছেন। তিনি এখানে।” অতঃপর রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তাকে ইশারা করে বললেন, “তুমি চুপ থাক।”

মুসলমানগণ রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে চেনার পর তাঁকে নিয়ে সবাই পর্বতের ঘাঁটিতে চলে গেলেন। এই সময় রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের সাথে ছিলেন আবু বকর সিদ্দীক, উমার ফারুক, আলি ইবনে আবি তালিব, তালহা ইবনে উবাইদুল্লাহ ও যুবাইর ইবনুল আওয়াম (রাদিয়াল্লাহু আনহুম) সহ একদল মুসলমান।

রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম যখন পর্বতের ঘাঁটিতে বিশ্রাম নিচ্ছিলেন তখন উবাই ইবনে খালফ সেখানে পৌঁছল। সে বললো, হে মুহাম্মদ, এ যাত্রা তুমি প্রাণে বেঁচে গেলেও তোমার নিস্তার নেই।” মুসলমানগণ বললেন, “ইয়া রাসুলুল্লাহ ! এ লোকটিকে সহানুভূতি দেখানো কি আমাদের কারো জন্যে সঙ্গত?” রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বললেন, “ওকে আসতে দাও।” সে রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের কাছে এলে, তিনি হারেস ইবনে সিম্মারের কাছে বর্শা নিলেন। বর্শা হাতে নেয়ার পর রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম এমন ভয়ংকর পাঁয়তারা করলেন যে, উট প্রবল জোরে নড়ে উঠলে তার পিঠের উপর বসা বিষাক্ত ভিমরুলের ঝাঁক যেমন ছত্রভংগ হয়ে যায়, আমরাও ঠিক তেমনি ভীতসন্ন্ত্রস্ত্র হয়ে রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের কাছ থেকে ছত্রভংগ হয়ে দূরে ছিটকে পড়লাম। অতঃপর রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তার দিকে এগিয়ে গেলেন।

বইটি ডাউনলোড করে বিস্তারিত পড়ি [৮.৮০ মেগাবাইট]

*************

Posted on 22/10/2011, in জিহাদ ও ক্বিতাল. Bookmark the permalink. Leave a comment.

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s

%d bloggers like this: